মুরাদনগর উপজেলার দিলালপুর গ্রামে দু’বন্ধুর বাড়িতে শোকের মাতম।

নিউজ মিডিয়া ডেস্কঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের দিলালপুর গ্রামের দু’বন্ধু সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। একজন ঢাকায়, অপরজন সৌদি আরবে। ঘটনাক্রমে দু’জনের লাশ গতকাল সোমবার গ্রামের বাড়িতে আনা হয়। উভয়ের জানাযার নামাজও হয়েছে বাদ মাগরিব। দু’বন্ধুর পরিবারে এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর শোকে এলাকার বাতাস যখন ক্রমেই ভারি হয়ে উঠছিল, তেমনি পরিবার ও স্বজনদের বুকফাটা আহাজারিতে চলছিল মাতম। এমন হৃদয় বিদারক করুণ দৃশ্যে উপস্থিত লোকজনের অজান্তেই চোখ গড়িয়ে টেপ টেপ করে পানি পড়ছিল। 

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোশারফ হোসেন (২৮) দিলালপুর গ্রামের মোবারক হোসেনের ছেলে। সাদ্দাম হোসেন (৩০) একই গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে। 

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সৌদিআরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোশারফ গত ৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সৌদি সময় বিকাল আনুমানিক ৬টায় মালিককে নিয়ে প্রাইভেটকার যোগে কর্মস্থল থেকে ফিরছিলেন। অপর দিক থেকে আসা লরির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে মারা যায় গাড়ি চালক মোশারফ হোসেন।

অপর দিকে গত শনিবার দুপুর আনুমানিক ১১টায় মুরাদনগর-হোমনা সড়কের দিলালপুর নামক স্থানে ৪ বন্ধু মিলে কথা বলছিল। ওই মুহুর্তে একটি সিএনজি চালিত অটো রিকশা এসে সাদ্দাম হোসেনের উপর তুলে দেয়। স্থানীয়রা প্রথমে তাকে মুরাদনগর হাসপাতালে নিলে অবস্থার অবনতি হলে জরুরী ভিত্তিতে কুমেক হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থা আশংকাজনক দেখে তাকে ওইদিন রাতে ঢামেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সোমবার সকাল আনুমানিক ৮টায় সে মারা যায়। গত ৬ মাস পূর্বে সাদ্দাম হোসেন কাতর থেকে দেশে আসেন। 

দিলালপুর গ্রামের ইউপি সদস্য ইদ্রিস মিয়া বলেন, মোশারফ হোসেন ও সাদ্দাম হোসেন তারা দু’জনেই ঘনিষ্ট বন্ধু ছিল। জীবিকার তাগিদে একজন গিয়েছিলেন সৌদীআরব, অপরজন কাতার। উভয়ের মৃত্যু হয় সড়ক দুর্ঘটনায়। তাদের মৃত্যুতে আমরা এলাকাবাসী গভীর ভাবে শোকাহত।  

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!