ব্রাহ্মণপাড়ায় স্বাস্থ্যসহকারীদের ৪র্থ দিনের মত কর্ম বিরতি পালন।

রেজাউল হক শাকিল।।
নিয়োগবিধি সংশোধন করে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে ৪র্থ দিনের মত কর্ম বিরতি পালন করেছে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ার স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারিবৃন্দ। বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় দাবি বাস্তবায়ন পরিষদের অংশ হিসেবে সারাদেশের ন্যায় গত ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে গতকাল ৩০ নভেম্বর সোমবার পর্যন্ত ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা।
    কর্ম বিরতিতে বাংলাদেশ হেল্থ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান বলেন, আমাদের এই তৃণমুল স্বাস্থ্য সহকারিদের কাজে অর্জনেই আজ বাংলাদেশ টিকাদানে বিশ্বের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ৭টি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে। এই সম্মাননাগুলো অর্জনে একমাত্র কারিগর আমরা স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারিগণ। আমরা দাবি আদায়ের লক্ষে গত একমাস আগে স্বাস্থ সহকারিদের পক্ষ থেকে দেশের সকল সিভিল সার্জনের মাধ্যমে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করি। আমাদের দাবিটি ন্যায় সংঙ্গত।
    কর্মসূচি বাস্তবায়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৮ সালের ৬ই ডিসেম্বর স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারিদের এক মহা সমাবেশে আমাদের বেতন বৈষম্য নিরসনের ঘোষনা দিয়েছিলেন। গত ২ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে ততকালীন স্বাস্থ্য মন্ত্রী আমাদের দাবি মেনে নেয়ে বাস্তবায়নের জন্য একটি কমিটি গঠন করেন এবং আমাদের দাবি মেনে নিয়ে একটি লিখিত প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। কিন্তু কোন প্রতিশ্রুতিই অদ্যবধি বাস্তবায়ন হয়নি। আমরা এসব প্রতিশ্রুতির দ্রুত বাস্তবায়ন চাই। দাবি পূরণে প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত এই কর্ম বিরতি অব্যাহত থাকবে।
    এসময় কর্ম বিরতিতে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারিবৃন্ধ উপস্থিত ছিলেন।

You might also like
error: Content is protected !!