অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব ব্যবসায়ীকে ঘর তুলে দিলেন এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন।

 

শামীম আহম্মেদ, মুরাদনগর(কুমিল্লা)থেকে :

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামে অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলামকে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে একটি নতুন ঘর তুলে দিলেন এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি। গত রোববার বিকেলে বাখরনগর গ্রামে আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি নিজে উপস্থিত হয়ে নতুন এই ঘর উপহার দেন। এ সময় মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম আনন্দে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন।

ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম বলেন, আগুনে পুড়ে যখন আমার সব কিছু শেষ হয়ে  গেছে, থাকার মত জায়গা ছিল না, খাওয়ার কিছু ছিল না। প্রতিবেশির গোয়াল ঘরে বউ বাচ্চাদের নিয়ে রাত কাটাইতাম, তখন এমপি সাহেব খবর পাইয়া আমার জন্য বাজার কইরা পাঠাইছে। কয়েক দিনের মধ্যে আমারে একটা নতুন ঘর কইরা দিছে। আমি যখন একবারে নিঃস্ব হইয়া গেছি, আমার এই বিপদের দিনে এমপি সাহেব যেই ভাবে আমার পাশে দাঁড়াইছে, আমি অত্যন্ত খুশি। এমপি সাবের এই ঋণ আমি কোন দিন শোধ করতে পারব না। আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করি আল্লাহ যেন এমপি সাহেবকে সুস্থ্য ভাবে বাঁচাইয়া রাখে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাখরনগর গ্রামের মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলাম অগ্নিকান্ডে নিঃস্ব হওয়ার বিষয়টি মোবাইল ফোনে এমপি আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুনকে অবহিত করা হয়। তাৎক্ষনিক তিনি ক্ষতিগ্রস্ত ওই পরিবারকে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন। পরে এমপি’র ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে ১ লাখ বিশ হাজার টাকা ব্যয়ে একটি নতুন বসতঘর তুলে দেয়া হয়।

নতুন ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ড. আহসানুল আলম সরকার কিশোর, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাশ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিন, মুরাদনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান, থানার ওসি সাদেকুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আবুল খায়ের ও উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ হাসান প্রমুখ।

You might also like
error: Content is protected !!